Untitled Document
আশ্বিন সংখ্যা ১৪১৭
মূলপাতা শিরোনাম বটতলা পঞ্জিকা প্রদর্শনী
পল রবসন এর গান
 

পল রবসন (১৮৯৮ - ১৯৭৬)
পল রবসনের মানবদরদী গানের জন্য তিনি যতটা খ্যাত, জীবদ্দশায় তিনি তার চেয়েও বেশী সুপরিচিত ছিলেন তাঁর রাজনৈতিক কর্মকান্ডের জন্য। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবতী অস্থির সময় গুলোতে এই মার্কিন কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক মার্কিন মুল্লুকের জন্য হুমকির হয়ে উঠেছিলেন।
কারণ তাঁর কন্ঠে ছিলো কালো মানুষের মুক্তির কথা, উপনিবেশ উচ্ছেদের কথা, মানবাধিকারের কথা।

১৮৯৮ সালের ৯ই এপ্রিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে তাঁর জন্ম। তাঁর পিতা শৈশবে একজন ক্রীতদাশ ছিলেন, পরে চার্চের পাদ্রী। এক বোন ও তিন ভাইয়ের এজকন পল রবসন স্কুলজীবনেই পড়ালেখার সাথে সাথে খেলাধুলা, অভিনয় এবং গান গাওয়াতে ছিলেন সহপাঠীদের থেকে এড়িয়ে। একই ঘটনা ঘটে তাঁর বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে। ১৯২০-২৩ সালে তিনি আইন পড়েন কলম্বিয়া ল স্কুলে। এ-সময় নাগাদ তিনি একজন পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়।
মঞ্চনাটক অভিনেতা এবং মঞ্চে বা রেডিওতে একজন গায়ক ১৯৩৮ সালে তিনি University of London এর School of Oriental and African Studies   থেকে ফ্রি ডিগ্রী নেন-বলা হয় যে তিনি ২০টি ভাষা জানতেন এবং ১২টি ভাষায় ছিলেন সিদ্ধহস্ত আর বস্তবেও আমরা তাঁর কন্ঠে চীনা, রুশ, ইংলিশ বা জার্মান ভাষার  গান পেয়েছি। তিনি বাংলা জানলে হয়তো এই গানের ছায়া অবলম্বনে Old man river গানটি বাংলায় গাইতেন। অবশ্য ভূপেন হাজারিকা সে অভাবটি পূরন করেছেন তাঁর বিস্তৃন্য দু’পারে অসংখ্য মানুষের হাহাকার এর মাধ্যমে।

১৯২৫-১৯৪২ এই সময়ে তিনি ১২টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তাঁর মার্কিন Show Boat (1936) (১৯৩৬) বা বিলেতি Song of Freedom (১৯৩৪) ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। তবে শুধু গান ও অভিনয়ে নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখলে নিঃসন্দেহে পল রবসনের জীবনে চলার পথটি এতোটা বিপদসংকুল হতো না- যদি না তিনি কয়লা শ্রমিকদের পক্ষে কথা না বলতেন, দেশের গৃহযুদ্ধে সক্রিয় ভূমিকা না রাখতেন, কালোদের অধিকার আদায়ে the council on africom affair গঠন না করতেন, যদি না তিনি হো চি মিন-এর  পত্রিকায় না লিখতেন অথবা কোনো ইউনিয়ন বা শ্রমিকদের আন্দোলনের সাথে যুক্ত না হতেন।

বিভিন্ন দেশে পল রবসনের জনপ্রিয়তা এতোটাই বেড়েছিলো যে আমেরিকার সরকার ১৯৫০ সালে তাঁর পাসপোর্ট ছিনিয়ে নেয় এবং ১৯৫৮ সাল পর্যন্ত এফবিআই এর কড়া নজরদারীতে দেশে অন্তরীণ রাখে। বলা যায় গান-বাজনা আর বিনোদনের সাথে যুক্ত আর কোন ব্যক্তির ওপর এমন নজরদারির পুলিশি নথি-পত্র পল রবসন ছাড়া অনন্য কোন গায়ক শিল্পীর ভাগ্যে আমেরিকার ইতিহাসে এ-যাবৎ জোটেনি।

রাষ্ট্রের সাথে দীর্ঘদিন মামলা চালনোর পর ১৯৫৮ সালে পাসপোর্ট হাতে পেয়েই তিনি পুনরায় ইউরোপ অস্ট্রেলিয়া ও রাশিয়া সফরে বেরিয়ে পড়েন- যতটা গান গাওয়ার জন্য ততটাই রাজনৈতিক আন্দোলন সংঘবদ্ধ করার জন্য, যখন তাঁর বয়স ৬০ বছর অবশ্য  FBI, CIA অথবা  M-15  বা M-16  এর কড়া নজরদারি থেকে তিনি আমৃত্যু রক্ষা পাননি। ১৯৬১ সালে পল রবসন মস্কোর একটি হাসপাতালে ভর্তি হন- ধারণা করা হয় যে কেউ পানপাত্রে হেলুসিনেসন উৎপাদী দ্রব্য মেশায়, যা পরে তাঁর রক্ত পরীক্ষায় পাওয়া যায়। সেখান থেকে লন্ডনের the Priory হাসপাতালে, যেখানে তাকে ৫৪ দফা শক-থেরাপী দেওয়া হয়-আর দুয়ে-দুয়ে চার শক-থেরাপীর ব্যবহার হচ্ছে (CIA -এর প্রিয় হাতিয়ার)। অবশেষে পূর্ব-বার্লিনের একটা হাসপাতালে তিনি খানিকটা সুস্থ হয়ে ওঠেন এবং ১৯৬৩ সালে দেশে ফেরেন। তবে বাকীটা জীবনে তিনি আর  সম্পূর্ণ আরোগ্য লাভ করেননি, ১৯৭৬ সালের ২৩ শে জানুয়ারী তিনি স্ট্রোক করে মারা যান।



Ol' man river,
Dat ol' man river
He mus'know sumpin'
But don't say nuthin',
He jes'keeps rollin'
He keeps on rollin' along.

He don' plant taters/tators,
He don't plant cotton,
An' dem dat plants'em
is soon forgotten,
But ol'man river,
He jes keeps rollin'along.

You an'me, we sweat an' strain,
Body all achin' an' racket wid pain,
Tote dat barge!
Lif' dat bale!
Git a little drunk
An' you land in jail.

Ah gits weary
An' sick of tryin'
Ah'm tired of livin'
An' skeered of dyin',
But ol' man river,
He jes'keeps rolling' along.

[Colored folks work on de Mississippi,
Colored folks work while de white folks play,
Pullin' dose boats from de dawn to sunset,
Gittin' no rest till de judgement day.
or musical part]

Don't look up
An' don't look down,
You don' dast make
De white boss frown.
Bend your knees
An'bow your head,
An' pull date rope
Until you' dead.)

Let me go 'way from the Mississippi,
Let me go 'way from de white man boss;
Show me dat stream called de river Jordan,
Dat's de ol' stream dat I long to cross.

O' man river,
Dat ol' man river,
He mus'know sumpin'
But don't say nuthin'
He jes' keeps rollin'
He keeps on rollin' along.

Long ol' river forever keeps rollin' on...

He don' plant tater,
He don' plant cotton,
An' dem dat plants 'em
Is soon forgotten,
but ol' man river,
He jes' keeps rollin' along.

Long ol' river keeps hearing dat song.
You an' me, we sweat an' strain,
Body all achin an' racked wid pain.
Tote dat barge!
Lif' dat bale!
Git a little drunk
An' you land in jail.

Ah, gits weary
An' sick of tryin'
Ah'm tired of livin'
An' skeered of dyin',
But ol' man river,
He jes'keeps rollin' along!



Untitled Document
Total Visitor : 708580
সাপলুডু মূলপাতা | মতামত Contact : shapludu@gmail.com
Copyright © Life Bangladesh Developed and Maintained By :