Untitled Document
কার্তিক সংখ্যা ১৪১৭
মূলপাতা শিরোনাম বটতলা পঞ্জিকা প্রদর্শনী
 
কালিদাস গুপ্তের গান ও জীবন
ভাষান্তর: শফিকুর রহমান শিপন

বাউল গান

দ্বিতীয়বারের মত আমরা যখন কালীর ঘাটে পৌঁছলাম তখন সবে সন্ধে। বিমল দে নামে কালীর এক ছাত্র সে সন্ধ্যায় উপস্থিত ছিল। আড্ডার শুরু হলো একতারা এবং বাউল সংগীতে তার ব্যবহার নিয়ে। কালী বলল যে, বাউলরা প্রচলিত ধর্মে বিশ্বাস করে না। সে দুটো গানের কথা আবৃত্তি করে শোনালো। এই গানদুটিতে প্রচলিত ধর্মগুলি মানুষকে যে নিষেধের রহস্যে আগলে রাখে সে সর্ম্পকে বলা হয়েছে। যারা গোরা তারা প্রচলিত ধর্মে বিশ্বাসী। তাই তারা কি করে নিজেদের ধর্মের এইসব রহস্য ভেদ করত পারবে? সুফি বাউলগান বিশ্বাস করে ধর্ম মানব সম্প্রদায়কে শৃঙ্খলিত করেছে। বাউল সম্প্রদায় কোনো ধর্ম বিশ্বাস করত না। তবে আজকাল তারা হরে কৃষ্ণ দ্বারা খানিকটা প্রভাবিত।

প্রচলিত ধর্ম বাউল সম্প্রদায়কে সব সময়ই দাবিয়ে রাখার চেষ্টা করে। তাই নিজেদেকে বাঁচিয়ে রাখার খাতিরে বাউলরা তাদের গানে এমন ভাব ব্যবহার করে যার অর্থ সহজে ধরা যায় না। সেটা না হলে প্রচলিত ধর্ম বিশ্বাসীরা বাউল সম্প্রদায়কে সমাজে টিকতে দিত না। বাউলদের এই ভাব শুধু বাউলরাই বোঝেন।

সুফি গানে সৃষ্টি তত্ত্ব নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। বলা হয়েছে- গাছ ফল দেয়, ফল গাছে ধরে। সূর্যের তাপে পানি বাষ্পিভূত হয়ে উপরে উঠে যায়, সেটা আকাশে মেঘ হয়ে ভেসে বেড়ায় আবার তার উৎস সাগরের কাছেই সে ফিরে আসে। কোন প্রাণীর দল থেকে যখন একটি প্রাণী হারিয়ে যায় তখন আমাদের মতো কোন শিকারী সেই একলা প্রাণীর যন্ত্রণা বুঝতে পারে না। ভালোবাসার মানুষ যখন চলে যায়, সেই যন্ত্রণা যদি তুমি বোঝ, তাহলে সেই প্রাণীর যন্ত্রণাও তুমি বুঝতে পারবে।
     
Untitled Document
Total Visitor : 708431
সাপলুডু মূলপাতা | মতামত Contact : shapludu@gmail.com
Copyright © Life Bangladesh Developed and Maintained By :