Untitled Document
অগ্রহায়ণ সংখ্যা ১৪১৭
মূলপাতা শিরোনাম বটতলা পঞ্জিকা প্রদর্শনী
বুড়ার দাড়ি

 বুড়ার দাড়ির কথা শুনছি সেই কোন ছোটবেলা থেকে। আম্মার ছেলেবেলার অনিবার্য অনুষঙ্গ সেটা। জলপাইগুড়ির গ্রামে কেটেছে আম্মার শৈশব, ঊনিশশ’ চল্লিশের দশকে। বুড়ার দাড়ি আর কচিকাঁচার লোভ জাগানো নানান জিনিস সঙ্গে করে হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা যখন পাড়ায় ঢুকত অন্য ছেলেপিলেদের সঙ্গে ইজের পরা আম্মাও মুখে আঙুল পুরে, জিভের জল ফেলতে ফেলতে ছুটত। আম্মার এসব গল্প শুনে আমাদের চোখের সামনে এমন একটা ছবি ফুটে উঠেছে সবসময়। আমার ছোটবেলায় ঢাকা শহরে বুড়ার দাড়ি পাওয়া যেত না। তার দেখা পেতে পেতে আমার কলেজ-ইউনিভার্সিটি পার হয়েছে। জিনিসটা কী, জানেন? হাওয়াই-মিঠাই। ঐ যে চিনি ফেটিয়ে তৈরি গোল গোল বলের মতো দেখতে লাঠির মাথায় প্যাঁচানো থাকে? ফেরিওয়ালারা বাঁশের মাথায় করে নিয়ে বেড়ায়। এখন দু’রঙে পাওয়া যায় - সাদা আর গোলাপি। খেয়ে দেখেছি, বিচ্ছিরি মিষ্টি। বুড়ো বয়সে কি তার স্বাদ পাওয়া যায়? আম্মা পাবে, ওটা আসলে শৈশবের স্বাদ।

কিন্তু অন্য বুড়ার দাড়ির সন্ধান পেলাম আম্মার গ্রামেই। পঞ্চাশের দশকে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার কালে চাট্টিবাট্টি গুটিয়ে আম্মাদের ঢুকে পড়তে হয়েছিল এই বঙ্গে। আর ফেরা হয়নি। আমিই গেলাম, বছর দু’য়েক আগে। সেখানে আম্মার আত্মীয়-স্বজন বেশ জাঁকিয়েই আছেন দেখতে পেলাম। যথেষ্ট মেহমানদারিও করলেন তাঁরা।

বুড়ার দাড়ির খবরটা বলি। এক ভোরে গ্রাম ঘুরতে বেড়িয়েছি। বগলে ক্যামেরা। প্রকৃতিচর্চাই প্রধান লক্ষ্য। ফুল দেখলে হ্যাংলার মতো দাঁড়িয়ে পড়ছি। হঠাৎ পা দু’টো কেমন যেন আটকে গেল। চোখের সামনে দেখছি কিন্তু কেন যেন বিশ্বাস হচ্ছে না ওটা একটা ফুল। ছবিটা দেখেছেন? পথের ধারে ক্ষেতের আলের ওপর ছড়িয়ে আছে একটা লতানে গাছ আর তার গায়ে অনেকগুলো ফুল। পাপড়িগুলো অন্যান্য সবজির ফুলের মতোই কিন্তু তার ওপর মাকড়সার জালের মতো অনেকগুলো সুতো। অবাক হওয়ার আরো বাকি ছিল। ফুলের ওপর উপুড় হতে দেখে বিস্মিত কয়েকজন এগিয়ে এসেছিলেন। একজন তাচ্ছিল্যের হাসি হেসে জানালেন ওটা পটল ফুল। ভাবখানা স্পষ্ট, তাঁদের গোলাপ-বেলির চর্চিত বাগান রেখে পটল ফুল নিয়ে কেন এই আদিখ্যেতা? এদিকে আমি ভেবেই চলেছি, যে গোবর মার্কা সবজিটা খেয়ে খেয়ে পেট পচে গেল তার যে অমন একটা অপূর্ব পর্ব আছে কে জানত? ঢাকায় স্বাদ পাইনি, কিন্তু কারিপাড়া গ্রামে বুড়ার দাড়ি বিস্ময়ের স্বাদ বেশ ভালই দিয়েছিল।

ছবি ও লেখা: প্রিসিলা রাজ



পটল ফুল           আলোকচিত্রী : প্রিসিলা রাজ

পটল ফুলি           আলোকচিত্রী : প্রিসিলা রাজ
     
Untitled Document

পটল ফুল
Total Visitor : 708669
সাপলুডু মূলপাতা | মতামত Contact : shapludu@gmail.com
Copyright © Life Bangladesh Developed and Maintained By :