Untitled Document
ভাদ্র সংখ্যা ১৪১৮
মূলপাতা শিরোনাম বটতলা পঞ্জিকা প্রদর্শনী
কোনকোনদিন
- শহিদুর রহমান


[রাতুলকে]
কোনকোনদিন তপ্ত একটি দুপুর কোনকোনদিন বিষণœতা নিয়ে আসে
কোনকোনাদিন তপ্ত লৌহকণা জিবের নিচে আটকে বসে থাকে

কোনকোনদিন ধূসর ধূলিকণা ধুলার মধ্যে সুতার কুচকাওয়াজ
সুতার সাথে মাঞ্জার সুতামিলে গলায় ফেলে হাজার সুতার ফাঁস

কোনকোনদিন এমনিই বসে থাকে অলস দুপুরে পা মেলা এক কিশোর
ঢাকার পথ আলসেমীর সুতো পরে মেলে দেয়া থাকে আধফোটা একভোর

এমনও দিন আসে হঠাৎ করে সকাল থেকে ঝলসাতে থাকে ত্বক
হুল্কাগ্নি সেঁকে মাংসপেশী কোনকোনদিন পাখির কলরব

আমার ভেতর ধূসর আকাশ মেলে বসে আছে শতবর্ষী এক বাজ
পাখায় ভরে হাজার দিনের স্মৃতি কানে পুরে খুনী ঈগল ঝাঁঝ

কোনকোনদিন একটি খুনের গল্প চাপা পড়ে যায় প্রধানমন্ত্রীর কাজ
কোনকোনদিন সকল মন্ত্রী মিলে গলাগলি হাঁটেন দিয়ে বৈশাখী সাজ

কোনকোনদিন খুনের গল্প এলে চ্যানেলগুলো বিজ্ঞাপন যায় ভুলে
তাদের দেখে ভয়ে ভয়ে কেঁপে হাজার বাচ্চা সীসার মতো যায় ডুবে

কোনকোনদিন ইস্কুলের সব শিশু ডুব দিয়ে যায় লালের গহীন বনে
বিষন্ন বন সবুজ পাতা ফেলে পরে থাকে লালশাড়ি আনমনে

কোনকোনদিন শ্রমিকেরা ভুলে যায় কোনকোনদিন মালিকেরা ভুলে যায়
কোনকোনদিন মেশিনপত্র সব সিলে আনমনে আঙুল হাত কলিজায়
কোনএকদিন নালপরানো ঘোড়া এনে সংসদ মিয়ার মানিক মাঠে ছেড়ে দেয়

কোনকোনদিন কেবল তপ্ত একটি দুপুর সেইদিন একলা পালক রেখে যায়
মনভোলা একপাখি; কোনকোনদিন জিভের নিচে গেঁথে থাকে হুলছাড়া এক বিষন্ন মৌমাছি
     
Untitled Document
প্রদর্শনী

বাংলার জল-ছবি
তন্দ্রা মুখার্জী

video video
Copyright © Life Bangladesh
সাপলুডু মূলপাতা | মতামত Contact : shapludu@gmail.com