Untitled Document
সময়ের প্রতিচ্ছবি

xmlphotoalbum


চারুকলার জয়নুল গ্যালারী - ১ এ হয়ে গেল ‘‘সময়ের প্রতিচ্ছবি’শীর্ষক ছয় তরুন শিল্পীর পাঁচ দিন ব্যাপি যৌথ শিল্পকর্ম প্রদশর্নী। চারুকলা অনুষদের ভিন্ন ছয়টি বিভাগের ছয় মাধ্যমের শিল্পকর্ম নিয়ে ভিন্নধর্মী এ প্রদশর্নীর শিল্পীরা হলেন শিল্পী অসীম হালদার সাগর, ফরাদ উদ্দিন মাসুম, গোপাল চন্দ্র সাহা, মেহেরুননেছা নিপা, শ্যামল চন্দ্র সরকার এবং উমা মন্ডল। শিল্পী অসীম হালদার সাগর মৃৎশিল্প বিভাগের এম এফ এ চুড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী। গবেষনামুলক, ধারনাপ্রধান মৃৎশিল্প চর্চার ধারাবাহিকতার তার নতুন তিনটি শিল্পকর্ম রয়েছে এ প্রদশর্নীতে। অসীম তার শিল্প অনুশীলনে জীবন, সময় ও সমাজের নানা অসংগতি প্রকাশ করতে চান। যে জীবন বর্তমান ও যে সময় প্রবাহমান। রাকু গ্লেজ, কম্পোজিসনের ভিন্নতা ও নিজের আত্ম-প্রতিকৃতির ব্যবহারে বরাবরের মতই অন্যদের থেকে অলাদা করেছে অসীমের মৃৎ ভাস্কর্য। তার শিল্পকর্মের বিষয় ভাবনা ও তার সাথে সংগতিপূর্ণ করে মাধ্যম ও উপকরণকে প্রয়োগের প্রচেষ্টা।

শিল্পী ফরহাদ উদ্দিন মাসুম ড্রইং এন্ড পেইংটিং বিভাগের এম এফ এ চুড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী। সময় এবং স্পেস বরাবরই মানুষের মাঝে দ্বন্দ তৈরী করে - এ ধারনায় মৌলিক রংয়ের ব্যবহারে গবেষনামুলক চিএকর্মে বিষয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবন, স্বপ্ন, স্বপ্নভঙ্গ।

শিল্পী গোপাল সাহা প্রাচ্যকলা বিভাগের এম এফ এ চুড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী। প্রদশর্নীর চিএকর্ম সম্পর্কে তার কথা- রাস্তায় পড়ে থাকা কাঁচের টুকরো ভাঙ্গা কাঁচের শব্দ অজানা আতঙ্ক, যে কোন সময় ধূলিসাৎ করতে পারে আমার কিংবা আপনার স্বপ্ন, যে কাঁচের প্রতিবিম্বে নিজেকে দেখছি পরিপূর্ন তাই যখন ভাঙবে নিজে সর্বোপরি স্বপ্ন হয়ে যাবে বিখন্ডিত । তারই আভাস দেয়ার চেষ্টা করেছি আমার ছবি গুলোতে, মনেপ্রাণে চাই দূর্ঘটনা মুক্ত জীবন।

শিল্পী মেহেরুননেছা নিপা কারুশিল্প বিভাগের এম এফ এ চুড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী। স্কিন প্রিন্ট মাধমে বিভাগিয় বিষয়গত অবকাঠাম থেকে বেরিয়ে গবেষনামুলক বিষয়কে উপস্থান করেছেন ভিন্ন আঙ্কিকে। বিষয়র বৈচিএতা, রঙের ব্যবহার ও ভাবনার প্রকাশ তার কাজের মুল আকর্ষন। স্বপ্নের শৈশব, কৈশর, বর্তমান সময়, পারিপার্ষিকতা, ধর্মীয় অনুসাশন ও নিজেস্ব অনুভবই তার শিল্পচর্চার মূল বিষয়। মূলত নিজের মাঝেই নিজস্বতাকে খোজার প্রয়াস ।

শিল্পী শ্যামল চন্দ্র সরকারের তিনটি উট কার্ভিং রয়েছে এ প্রদশর্নীতে। কিছুটা বিমূর্ত ঘরানায় করা মানুষ, ঘোরা ও কুকুরের অবয়ব এবং এগুলোর এখানে বাহ্যিক সৌন্দর্য্যকে তুলে ধরেছেন দক্ষতার সাথে। তার কাজের বিষয়গত ভাবনা ‘‘ যা কিছু মহান অর্ধেক তার করিয়াছে নারী অর্ধেক তার নর”।

শিল্পী উমা মন্ডল প্রিন্ট মেকিং বিভাগের এম এফ এ চুড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী। তার এচিং একোয়াটিন্ট মাধমে করা বয়হুড সিরিজটি একরঙা। বর্ণের অভাবটা মাধ্যমগত। উমা তার কাজ সর্ম্পকে বলেন - শৈশবের চোখে সমস্তকিছুই অফুরান। বেড়ে ওঠার ভিতর রচিত হয় সীমাবদ্ধতার জ্ঞান। নিজের লাটিম, ঘুড়ি ছোঁড়ার দিনে বাস্তবতার সামনে আসে শিশু। তবু তার ভিতর থাকে রেখা নির্মাণের অভিজ্ঞতা অক্ষর চেনার সফলতা আধিপত্য বিস্তার ও উপেক্ষার অনুভূতি। প্রকৃতির ক্লাসেই পাঠ শুরু হয় ধারাপাত। এভাবে শিশুর মন, শিশুকে ছেপে ছেপে কাগজে বুনেছি তাঁর অনুভূতি ।
সাপলুডুর অন্যান্য সংখ্যায় প্রকাশিত প্রদর্শনীসমূহ
সাপলুডু | shapludu
Untitled Document